CH Ad

Thursday, August 8, 2013

মা ছেলের সংসার

আমরা টেক্সট ফরম্যাটে গল্প দেয়ার জন্য দুঃখিত, যারা পড়তে পারবেন না তাদের কাছে আগেই জানিয়ে রাখছি। আরও দুঃখিত গল্পগুলো চটি হেভেনের স্পেশাল ফরম্যাটে না দিতে পারার জন্য। খুব শিগগিরই গল্পগুলো এডিট করে চটি হেভেন ফরম্যাটে আপনাদের কাছে উপস্থাপন করবো। এই অসঙ্গতির জন্য আন্তরিক ভাবে দুঃখিত।





মা ছেলের সংসার




আমি আমার বাবা মার একমাত্র সন্তান। আমার বাবা ইটালি থাকে আজ ১৫ বৎসর হল। আমি তিতুমির কলেজে ডিগ্রির ছাত্র। আমার বয়স ২০। আমার বাবা বিদেশে থাকার কারনে আমার মা সব সময় মন খারাপ করে থাকে জার ফলে আমার ও বিশয় তা ভাল লাগে না। আমার মা দেখতে মোতামোটি নয় একেবারে যাকে বলে সুন্দরী। আমার বাবা অনেক ভাগ্যের কারনে এমন সুন্দরী বউ পাইছে। আমার মা কে এলাকার লোকেরা একজন ভদ্র মহিলা বলেই জানে এবং এজন্য এলাকায় তার শুনাম ও আছে।
যাই হোক আসল কথায় আসি। আমার মা মন খারাপ করে থাকে বলে আমার ও ব্যপারটা ভাল লাগে না। তাই আমি সব সময় আমার মা কে হাসি খুশি রাখার চেষ্টা করি। কিন্তু সে কি র এমনি যায়। কারন বাবা ১-২ বছর পর পর দেশে আসে। তাই আমি মা কে নিয়ে সব সময় চিন্তায় থাকি যে কিভাবে তাকে খুশি রাখা যায়। মাঝে মাঝে মা কে নিয়ে সিনেমা দেখা আর ঘুরতে যাওয়া আমার রুটিন মাফিক কাজ।
আমাদের বাসায় একটা ছুটা বুয়া কাজ করে। সে মা কে নানা কাজে সাহায্য করে। আমাদের তেমন কোন আত্মীয় সজন নেই সুতরাং ঝামেলাও নেই। আমি আর মা সারাদিন বলতে গেলে একাই থাকি। 
আমার মা কে আমি কখনো খারাপ নজরে দেখিনি। কিন্তু মার সঙ্গ আমার সব সময় ই ভাল লাগে। আমার মা দেখতে অন্য সব সাধারন বাঙালি নারির মত কিন্তু তার ফিগার টা সে অনেক যত্ন করে রেখেসে। বাবার পাঠান বিদেশি প্রসাধনীর কল্যানে আমার মার রুপ যেন ঠিকরে পরে। মাকে দেখে মনে হয় না তার বয়স ৩৯ মনে হয় ৩০-৩২। 
যাই হক একদিন আমি আর মা ডিনার করে বসে টিভি দেখছি এমন সময় হথাৎ একটা চ্যানেল এ ব্লু ফিল্ম এর অংশ দেখাল যা দেখে আমি অপ্রস্তুত হয়ে তারাতারি চ্যানেল চেঞ্জ করে দিলাম। মা আর কিছু না বলে উঠে চলে গেল। আমিও কিসুক্ষন পরে মার পাশে সুয়ে পরলাম। এভাবেই আমাদের মা ছেলের সংসার চলতে লাগল। কিন্তু হঠাৎ গত বছর ২০১১ এর মার্চ মাসে ঘটে গেল আমার জিবনের সব চেয়ে ভিন্ন ঘটনা।







কেমন লাগলো দু-একটা শব্দ হলেও প্লিজ লিখে জানান। আপনাদের মহামূল্যবান মন্তব্যই আমার গল্প শেয়ার করার মূল উদ্দেশ্য। 




মূল ইন্ডেক্স এ যেতে হলে নিচের লিঙ্কে ক্লিক করুনঃ
click here


হোমপেজ এ যেতে হলে নিচের লিঙ্কে ক্লিক করুনঃ

No comments:

Post a Comment